স্বাধীনতাবিরোধীদের বিচারে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করেছি: প্রধানমন্ত্রী

SHARE

ওয়ার্ল্ড ক্রাইম নিউজ বিডি ডট কম,নিজস্ব প্রতিনিধি,১৫ এপ্রিল : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় এসে স্বাধীনতাবিরোধীদের হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছিল। আমরা ক্ষমতায় এসে স্বাধীনতাবিরোধীদের বিচারের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করেছি।

আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর কাকরাইলে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের জন্য নতুন বাসভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনি ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গড়ার পাশাপাশি সব শ্রেণির মানুষের অধিকার রক্ষার ব্যবস্থা করে গিয়েছিলেন। তাকে হত্যার মধ্য দিয়ে এদেশের অগ্রগতি থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পাশাপাশি তাকে সপরিবারে হত্যাকাণ্ডের বিচার করতে না দিয়ে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল ন্যায়বিচারের চাকাকেও’।

তিনি বলেন, ‘আমরা বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচারের ব্যবস্থা করেছি, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছি। কয়েকজন পালিয়ে থাকলেও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বেশিরভাগের ফাঁসির রায় কার্যকরও হয়েছে। বেশ কয়েকজন শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসিও কার্যকর হয়েছে। এসব বিচারের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছে।’

বিচারপতিদের যুগান্তকারী রায় দেওয়ার মাধ্যমে এ অগ্রযাত্রা শুরু এবং সংশ্লিষ্টদের পদক্ষেপ নেওয়ায়, সহযোগিতা করায় অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু মাত্র সাড়ে তিন বছরে একটি স্বাধীন রাষ্ট্রকে সুসংগঠিত করে দিয়ে গেছেন। তিনি আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের স্বীকৃতি আদায় করেছেন। এ জন্য আমি শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় তিন নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।

তিনি বলেন, ‘৭৫ এর পরে শুরু হওয়া বিতর্কগুলোকে হটাতে সাহায্য করেছে বিচারপতিদের এক একটি রায়।’

নতুন আইন তৈরির সুদীর্ঘ প্রক্রিয়া তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে আইন প্রণয়ন ও জাতীয় সংসদে চূড়ান্তভাবে তা পাস করেন সংসদ সদস্যরা। জনস্বার্থেই তাই সব আইন তৈরি হয়। এজন্য কোনো আইন নাকচের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক জেলায় বিচারিক আদালত স্থাপন করেছি। সেখানকার বিচারপতিদের জন্য আবাসনের ব্যবস্থা করেছি। তাদের নিরাপত্তার বিষয়টি আমরা জোরদার করেছি।

এর আগে বক্তব্যের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছে জানান। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের জন্য নতুন বাসভবনের নির্মাণ কাজ দ্রুত শেষ করায় প্রধানমন্ত্রী গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালায়কে ধন্যবাদ জানান।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY