বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকাল বন্ধ সব বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজ

SHARE

du_134573_134589ওয়ার্ল্ড ক্রাইম নিউজ বিডি ডট কম,নিজস্ব প্রতিনিধি,১০ এপ্রিল : সরকারের পক্ষ থেকে আশানুরূপ সাড়া পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বুধবার থেকে সারাদেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজে ক্লাস বর্জনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের যুগ্ম সমন্বয়ক রাশেদ খান সাংবাদিকদের জানান, মতিয়া চৌধুরী আন্দোলনকারীদের নিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছিলেন তা প্রত্যাহারে আজ বিকেলে পাঁচটা পর্যন্ত তাকে সময় দেয়া হয়েছিল কিন্তু তিনি তা প্রত্যাহার করেননি। অন্য দিকে সরকারের সঙ্গে গতকাল যে বৈঠক হয়েছিল তা মেনে নেয়নি সারাদেশে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রার্থীরা। সেকারণে এক মাসের স্থগিতের ঘোষণা প্রত্যাহার করে নেয়া হলো।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বেশ কিছু কর্মসূচী ঘোষণা করেন। এক. কোটা সংস্কারের দাবির প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট ঘোষণা আসতে হবে। কারণ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধরী ও অর্থমন্ত্রী (বাজেটের আগে কোটা সংস্কার সম্ভব নয়) আবুল মাল আবদুল মুহিতের বক্তব্য অপ্রত্যাশিত ও সাংঘর্ষিক। ফলে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট বক্তব্য আসা দরকার। দুই. প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে স্পষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত দেশের সকল সরকারী কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা ও ক্লাস বন্ধ থাকবে। তিন. দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত (প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে ৭ টা পর্যন্ত) সড়ক-মহাসড়কে লাগাতার অবরোধ চলবে। তিনি আরো বলেন, আন্দোলনের সময় গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি ও আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY