২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীতে সমাবেশ করতে চায় বিএনপি

SHARE
bnp_126131ওয়ার্ল্ড ক্রাইম নিউজ বিডি ডট কম,নিজস্ব প্রতিনিধি,১৬ ফেব্রুয়ারি :  দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) রাজধানীতে সমাবেশ করতে চায় বিএনপি। এ বিষয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অন্যথায় নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অনুমতি চাইবে দলটি।
আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনের দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বিএনপির উদ্যোগে আমরা ঢাকায় সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ সমাবেশ হবে।
এ জন্য অনুমতি চেয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়েছে বলেও জানান রিজভী।
বিএনপির এই নেতা বলেন বলেন, ‘জাল-জালিয়াতি ও ঘষামাজা করে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রহসনের রায় দিয়েছে সরকার। কারণ, মাত্র ১০ দিনের মধ্যে বিচারক ৬৩২ পৃষ্ঠার রায় লিখেছেন। অথচ নিয়ম অনুসারে সাত দিনের মধ্যে আসামিপক্ষকে রায়ের কপি দেওয়ার কথা থাকলেও তা দেওয়া হচ্ছে না।’
জিয়া এতিমখানা দুর্নীতির মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি আদালত খালেদা জিয়াকে ৫ বছর কারাদণ্ড দেওয়ার পর থেকে তিনি বন্দি আছেন।
দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবিতে প্রথমে দুই দিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি দেয় বিএনপি। এরপর মানববন্ধন, অবস্থান ও অনশন কর্মসূচি পালনের পর বৃহস্পতিবার আরও ৩ দিনের কর্মসূচি দেওয়া হয়।
গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণা করেন বিশেষ আদালতের বিচারক ডা. মো. আখতারুজ্জামান। রায়ে তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দেন। এ ছাড়া বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ৫ আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড এবং ২ কোটি ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।
মামলার অন্য আসামিরা হলেন মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাদের মধ্যে তারেক রহমান, কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান পলাতক।
সংবাদ সম্মেলনে রিজভীর সঙ্গে ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির খান, আমিরুল ইসলাম আলিম, নিপুন রায় চৌধুরী।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY