প্রধানমন্ত্রী যে মন্ত্রণালয়ে দেবেন সেখানেই কাজ করব: তারানা

SHARE

tarana-halim-abn_119120ওয়ার্ল্ড ক্রাইম নিউজ বিডি ডট কম,নিজস্ব প্রতিনিধি,০৭ জানুয়ারী : চার দিন পর আজ রবিবার নতুন দায়িত্ব বুঝে নিতে তথ্য মন্ত্রণালয়ে যাচ্ছেন সদ্য দায়িত্ব পাওয়া সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তাকে নিয়ে ওঠা গুঞ্জন বন্ধ করতে তাড়াহুড়ো করেই যোগ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে মন্ত্রণালয়ে দেবেন সেখানেই কাজ করব। হয়তো এবারও ভালো কাজের পুরস্কার হিসেবেই তথ্য মন্ত্রণালয়ের চ্যালেঞ্জে নিতে দিয়েছেন।’

এর আগে গত বুধবার মন্ত্রীদের দফতর বণ্টনের সময়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে তারানা হালিমকে তথ্য প্রতিমন্ত্রী করা হয়। ওইদিন আরও তিনজনের দফতর পুনর্বণ্টন করা হয়। এরপর নতুন মন্ত্রণালয়ে যোগ দেননি তারানা হালিম। গণমাধ্যমে নিজের অভিমানের কথাও লুকাতে পারেননি তিনি। বৃহস্পতিবার নতুন মন্ত্রণালয়ে তার যোগ না দেয়ায় ছড়িয়ে পড়ে নানান গুঞ্জন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তারানা হালিম বলেন, ‘যেভাবে ছড়ানো হচ্ছে আমি তথ্য মন্ত্রণালয়ে যোগ দিচ্ছি না বা দিতে চাচ্ছি না, তাতে সরকারের ভাবমূর্তি বা দল ক্ষতিগ্রস্ত হবে। গুজব-গুঞ্জন বন্ধ করতেই আগামীকাল রবিবার থেকে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখন এক-দু’দিন দেরি করলে আরও নানান কথা ছড়াবে।’

তিনি বলেন, ‘তথ্য মন্ত্রণালয় প্রতিমন্ত্রীর জন্য প্রস্তুত ছিল না। সেখানে প্রতিমন্ত্রীর কক্ষ নেই, গাড়ি নেই। তারপরও আধাঘর হোক আর ভাঙা চেয়ারই হোক, যোগ দিতে হবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমার স্ট্র্যাটেজি (কৌশল) আমি একদিনেই ঠিক করে নিয়েছি।’

তারানা হালিমকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে থেকে সরিয়ে দিতে সরকারের ভেতর একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট কাজ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
আবার একটি অংশ অভিযোগ করেছে, তারানা হালিমের সময়কালে টেলিযোগাযোগখাতের বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে প্রাতিষ্ঠানিক জটিলতা বেড়েছে। এমনকি তারানা হালিম অনেক বিষয়েই একক সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছেন অনেকটা একগুয়েমি করে।

এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে তারানা হালিম বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের অধীন অনেক কোম্পানির চেয়ারম্যান হলেন সচিব। তাই অনেক গুরুত্বটপূর্ণ ফাইল মন্ত্রী পর্যন্ত আসতোই না।’

তবে এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রিসভায় রদবদলের পর অনেক ‘ভুল মেসেজ (বার্তা)’ যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ‘টেলিকমিউনিকেশন মন্ত্রণালয়ে আমাকে একটা অনেক বড় শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে হয়েছে। আমাকে যুদ্ধ করতে হয়েছে এতোদিন, আরও যুদ্ধ করতে হবে।’

তবে প্রধানমন্ত্রীর মুখ ছোট হয় এমন কিছু তিনি করবেন না বলে জানান তারানা হালিম।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY