নিউইয়র্কে বাসায় ঢুকে বাংলাদেশিকে গুলি

SHARE

baওয়ার্ল্ড ক্রাইম নিউজ বিডি ডট কম,আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি,২৩ ডিসেম্বর : যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বাংলাদেশি-অধ্যুষিত এলাকা এস্টোরিয়ায় মহিবুল ইসলাম (৫২) নামের এক প্রবাসীকে নিজের বাসায় গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। তার পায়ে গুলি লাগায় তিনি প্রাণে বেঁচে গেছেন।

স্থানীয় সময় ২১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে মহিবুল ইসলাম এস্টোরিয়ার ২৪ স্ট্রিটে নিজ অ্যাপার্টমেন্টে গুলিবিদ্ধ হন। তাকে স্থানীয় মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার পায়ে অস্ত্রোপচার করা হবে।

পুলিশ জানায়, এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তি বাসার দরজায় নক করার পর মহিবুল তার পরিচয় জানতে চান। এ সময় ওই ব্যক্তি ইউপিএসের লোক বলে পরিচয় দিয়ে বলে, ‘আমরা ইউপিএস এর ডেলিভারি দিতে এসেছি।’ তখন মহিবুল দরজা খুলে দিলে ওই ব্যক্তি তার মাথা লক্ষ্য করে পিস্তল তাক করেন। তিনি পিস্তলটি ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করলে গুলিটি লক্ষ্যভেদ করে তার পায়ে লাগে। এ সময় আরও একজন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে দরজার বাইরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

এই সময় তার স্ত্রী বেড় রুমে ছিলেন। তিনি স্বামীর অবস্থা দেখেই দৌড় দিয়ে বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলায় উঠে প্রতিবেশীর সাহায্য চাইলে তারা পুলিশকে কল করেন। পুলিশ এবং অ্যাম্বুলেন্স এসে মহিবুল ইসলামকে এলেমহার্স্ট হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থা শঙ্কামুক্ত।

আহত মহিবুলের বাড়ি মৌলভীবাজারের রাজনগর বলে জানা গেছে। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে নিউইয়র্কে বসবাস করছেন। মহিবুল ইসলাম বিভিন্ন মিডিয়াকে বলেন, ‘আমি দ্বিতীয় জীবন ফিরে পেয়েছি। দুর্বৃত্তরা আমার কাছে কিছুই চায়নি। কিন্তু আমাকে কেন যে গুলি করলো আমি বুঝতে পারছি না।’

প্রকাশ্য দিবালোকে বাসায় ঢুকে মহিবুলকে গুলি করার ঘটনায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এমন হামলার কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বিষয়টি ‘বিদ্বেষপূর্ণ অপরাধ’ কি না, তাও বোঝা যাচ্ছে না।

দুর্বৃত্তকে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে ২ হাজার ৫০০ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। প্রচারপত্র প্রকাশ করা হয়েছে। প্রচারপত্রে সিসিটিভি ফুটেজ থেকে সংগৃহীত দুর্বৃত্তের চারটি ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY